July 17, 2024, 4:05 pm

ময়মনসিংহ-১১ ভালুকা আসনে সতন্ত্র প্রার্থী ওয়াহেদ’র ট্রাক প্রতীকের জয় জয়কার

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, জানুয়ারি ২, ২০২৪
  • 41 Time View

ওমর ফারুক তালুকদার, ভালুকাঃ

ময়মনসিংহ-১১ ভালুকা আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী আলহাজ্ব এম এ ওয়াহেদ’র ট্রাক প্রতীকের জয় জয়কার অবস্থা। সুদৃঢ় অবস্থানে রয়েছেন নির্লোভ ও হেভিওয়েট এই প্রার্থী। নির্বাচনের আর মাত্র ৫ দিন বাকি। এরই মধ্যে ওয়াহেদ’র ‘ট্রাক’ প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। ট্রাক প্রতীকের বিজয় নিশ্চিত করতে মাঠে নেমেছেন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতা-কর্মী ও সমর্থক, ব্যবসায়ী ও শ্রমিকদের বড় অংশ, জনপ্রতিনিধি, সুশীল সমাজসহ বিশাল সমর্থক গোষ্ঠি। ১১টি ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান ও সাবেক অধিকাংশ চেয়ারম্যান দলবল নিয়ে ব্যাপক গণসংযোগ করছেন। অপরদিকে বিভিন্ন কায়দায় নির্বাচনী মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন ‘ট্রাক’ প্রতীকের বিপুল সংখ্যক সমর্থক। নির্বাচনী আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছেন সকলের প্রিয় আলহাজ্ব এম এ ওয়াহেদ। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষক মহলের দৃষ্টিতেও রয়েছে তার সুদৃঢ় অবস্থান। বিশিষ্ট দানবীর ও সমাজসেবক জেলা আওয়ামী লীগের অন্যতম সহ-সভাপতি আলহাজ্ব এম এ ওয়াহেদ। ভালুকা পৌরসভা ও ১১টি ইউনিয়নের গ্রাম থেকে গ্রামান্তর সবার কাছে তিনি নির্লোভ ও পরোপকারী হিসেবে পরিচিত। ব্যবসায়ী নেতা ওয়াহেদ নানান কারণেই গুরুত্বপূর্ণ। এম এ ওয়াহেদ দেশের অন্যতম শিল্প ও পর্যটন উদ্যোক্তা।

রাজনীতিতে নিবেদিতপ্রাণ আলহাজ্ব এম এ ওয়াহেদ’কে ঘিরে আওয়ামী লীগ, সহযোগী ও অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীসহ সর্বস্তরের মানুষের মধ্যে চলছে ব্যাপক তোড়জোড়। তাকে বিবেচনা করা হচ্ছে জনপ্রিয় প্রার্থী হিসেবে। সম্মানজনক ভোট ব্যবধানে ট্রাক প্রতীকের প্রার্থী এম এ ওয়াহেদ বিজয়ী হবেন বলে পর্যবেক্ষক মহলের ধারণা। অবহেলিত ভালুকা উপজেলাবাসীর উন্নয়নে সর্বস্তরের ভোটাররা ‘ট্রাক’ প্রতীকের পক্ষে একজোট হয়েছেন। ভোটারদের মতে, কাঙ্খিত উন্নয়ন কর্মকাণ্ড বাস্তবায়ন করে সর্বস্তরের মানুষের স্বপ্ন পূরণ করতে পারবেন একমাত্র এম এ ওয়াহেদ। যোগ্য ও গ্রহণযোগ্য প্রার্থী হিসেবে ভোটাররা তাকেই বেছে নিয়েছেন। তারা জনগণের মনোনীত স্বতন্ত্র প্রার্থী ওয়াহেদের ট্রাক প্রতীকের বিজয় নিশ্চিত করার অঙ্গিকার করেছেন। আলহাজ্ব এম এ ওয়াহেদ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ বিনির্মাণে সম্পৃক্ত থাকার শপথ নিয়ে নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন বলে দৈনিক আজকের সংবাদ’কে জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ভালুকাবাসীর উন্নয়নে কেউ কথা রাখেনি। ভালুকাবাসীর দুঃখ-দুর্দশা নিরসনে প্রয়োজনীয় সব পদক্ষেপ নিবো। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী সকলের অংশগ্রহণের জন্য নির্বাচন উন্মুক্ত করে দিয়েছেন। নির্ভয়ে পছন্দের প্রার্থীর পক্ষে কাজ করার পরামর্শ দিয়েছেন। এ কারণেই আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের অধিকাংশ নেতা-কর্মী ও সমর্থকরা আমার ‘ট্রাক’ প্রতীকের পক্ষে কাজ করছেন। জানা যায়, ভালুকার আরেক সতন্ত্র প্রার্থী (ঈগল প্রতিক) ভালুকা উপজেলা আওয়ামী লীগের সংগ্রামী সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব গোলাম মোস্তফার নেতৃত্বে  উপজেলা আওয়ামী লীগের অধিকাংশ নেতাই  আলহাজ্ব এম এ ওয়াহেদে’র ট্রাক প্রতীকের পক্ষে মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। অন্যদিকে উপজেলা ও পৌর যুবলীগ, উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগ, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি, সম্পাদক, আঞ্চলিক শ্রমিকলীগ, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগ ও যুব মহিলালীগ, উপজেলা তাঁতী লীগসহ বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মী ও সমর্থকরা জনপ্রিয় স্বতন্ত্র প্রার্থী আলহাজ্ব এম এ ওয়াহেদ’র ‘ট্রাক’ প্রতীকের পক্ষে নিরলস কাজ করছেন। এই আসনের নির্বাচন ঘিরে রাজনীতিতে নতুন মাত্রা যোগ হয়েছে। তিনি বিজয়ী হয়ে জাতির পিতার কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ময়মনসিংহ-১১ ভালুকা আসনটি উপহার দিবেন। আলহাজ্ব এম এ ওয়াহেদ বিগত জাতীয় সংসদ, পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের পক্ষে সক্রিয় ভূমিকা রাখেন। এছাড়া রাজনৈতিক কর্মসূচি পালন, সক্রিয় অংশগ্রহণ ও ভূমিকা রাখার কারণেও তিনি সকলের কাছে জনপ্রিয়। মূলত এসব কারণেই দলীয় নেতা-কর্মী ও সমর্থকরা এম এ ওয়াহেদ’র পক্ষ নিয়েছেন।

নির্বাচন বিশ্লেষকরা জানান, গ্রহণযোগ্যতা ও জনপ্রিয়তার প্রশ্নে জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ট্রাক প্রতীকের প্রার্থী আলহাজ্ব এম এ ওয়াহেদ শক্তিশালী প্রার্থী। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শের সৈনিক এ নেতা প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন, দলীয় নেতাকর্মী ও সমর্থকদের সাথে নিবিড় যোগাযোগ, রাজনৈতিক ও সাংগঠনিক কার্যক্রমে ব্যাপকভাবে সফল। আলহাজ্ব এম এ ওয়াহেদ অবহেলিত ভালুকা উপজেলাকে আধুনিক ও সমৃদ্ধশালী উপজেলা হিসেবে গড়ার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন। তিনি জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত সদরবাসীর সেবা করতে চান। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় জনগণের কল্যাণে নিজেকে নিবেদিত করেছেন। জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত তা অব্যাহত রাখতে চান। আলহাজ্ব এম এ ওয়াহেদ নীতি ও আদর্শের প্রশ্নে আপোসহীন। আলোচনা-পর্যালোচনা ও নির্বাচনী জল্পনা-কল্পনায় তাকে জনপ্রিয় প্রার্থী হিসেবে ধরে নিয়ে চলছে সরগরম প্রচারণা। তার ব্যক্তি ইমেজ নিয়েই নির্বাচনী প্রচারণা দানা বেঁধে উঠেছে। দলমতের উর্ধ্বে সাধারণ মানুষের কাছে এম এ ওয়াহেদ’র ব্যাপক সমর্থন রয়েছে। সততা, দক্ষতা, অভিজ্ঞতা ও দায়িত্বশীলতা ছাড়াও উন্নয়নের ক্ষেত্রে তিনি প্রতিশ্রুতিশীল। নির্লোভ ও পরোপকারী আলহাজ্ব এম এ ওয়াহেদ’র বিজয়ে সর্বস্তরের মানুষ একাট্টা।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category