July 18, 2024, 1:52 pm

কি হচ্ছে গাজায়, যুদ্ধ কোন পথে? মহসিন মুন্সী।

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ৪, ২০২৪
  • 57 Time View

একজন সিনিয়র ফেলো আদেল আবদেল গাফর বলেছেন “হত্যাকাণ্ড, বাস্তুচ্যুত জনসংখ্যা, মৃত শিশু এবং অনাহারের দৃশ্য আমাদের পর্দায় পূর্ণ করার কারণে, জোয়ার সত্যিই সরে যাচ্ছে,”। তিনি যোগ করেছেন যে ইউরোপ এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র জুড়ে বিশাল প্যালেস্টাইনপন্থী সমাবেশগুলি রাজনীতিবিদ দের উপর চাপ সৃষ্টি করেছে, বেলজিয়ামের মতো কিছু ইউরোপীয় দেশ গাজা নিয়ে তাদের সুর পরিবর্তন করেছে এবং যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানিয়েছে, যা ইসরাইল দৃঢ়ভাবে প্রত্যাখ্যান করেছে।

ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর প্রকাশিত সর্বশেষ পরিসংখ্যান অনুসারে, ৭ অক্টোবর গাজা সংঘাত শুরু হওয়ার পর থেকে ৫০৭ সেনা নিহত এবং ২২৬৫ জন আহত হয়েছে।

গাজায় অবিলম্বে যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানিয়ে তরুণরা সারা বিশ্বে বিক্ষোভ চালাচ্ছে।গাজায় ইসরায়েলের যুদ্ধের বিরুদ্ধে বিশ্বব্যাপী বিক্ষোভ কয়েক মাস ধরে চলা হামলার বিরুদ্ধে ব্যাপক ক্ষোভকে প্রতিফলিত করে। তরুণরা প্রতিবাদের অগ্রভাগে থাকছে।

গাজায় ‘গণহত্যার অপরাধে’ ইসরায়েলের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে (আইসিজে) মামলা দায়ের করেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। গাজায় প্রায় তিন মাস ধরে অব্যাহতভাবে চালানো ধ্বংসযজ্ঞ ও বোমা হামলায় ২১ হাজার ৫০০ জনের বেশি মানুষ নিহত হওয়ার পর এমন অভিযোগে মামলা করল দেশটি। তবে জাতিসংঘের আদালতে মামলাটি প্রত্যাখ্যান করেছে ইসরায়েল। যদিও দেশটিকে ফিলিস্তিনিদের ওপর সম্মিলিত শাস্তির অপরাধে অভিযুক্ত করা হয়েছে। আন্তর্জাতিক বিচার আদালত, যেটিকে বিশ্ব আদালতও বলা হয়। এটি একটি জাতিসংঘের দেওয়ানি আদালত। যা দেশগুলোর মধ্যে বিরোধের বিচার করে। এটি আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত (আইসিসি) থেকে আলাদা, যা যুদ্ধাপরাধের জন্য ব্যক্তিদের বিচার করে থাকে।

ইংরেজি নববর্ষে সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া একাধিক ভিডিওতে দেখা যায়, রাত ১২টা বাজার সঙ্গে সঙ্গে ইসরাইলের আকাশে উড়ে আসে ঝাঁকে ঝাঁকে ক্ষেপণাস্ত্র। এসময় আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ব্যবহার করে ১০টি ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংস করা হয়েছে বলে দাবি করেছে ইসরাইল। এসময় নববর্ষের অনুষ্ঠান পালন বাদ দিয়ে ভূগর্ভস্থ আশ্রয়কেন্দ্রে চলে যেতে বাধ্য হয় বহু ইসরাইলি। ইসরাইলি গণমাধ্যমগুলো বলছে, এদিন গাজা থেকে তেল আবিবে অন্তত ২০টি ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়েছে। ইসরাইলি সেনাবাহিনী লিখেছে, ইসরাইলে রকেট হামলার মধ্য দিয়ে ২০২৪ সাল শুরু করেছে হামাস। বিপরীতে ইসরাইলের পক্ষ থেকে বুরেজি শরণার্থী শিবিরে চালানো বিমান হামলায় কমপক্ষে ১৫ জনের মৃত্যুর তথ্য দিয়েছে আলজাজিরা। আর দেইর আল বালাহতে ইসরাইলি হামলায় কমপক্ষে ৫ জনের মৃত্যুর তথ্য দিয়েছে মিডল ইস্ট আই। 

অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকা থেকে যুদ্ধরত পাঁচটি ব্রিগেড প্রত্যাহার করে নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইসরাইল। একটি ব্রিগেডে সাধারণত তিন থেকে পাঁচ হাজার সেনা থাকে। সে হিসেবে গাজা থেকে ১৫ থেকে ২৫ হাজার সেনা প্রত্যাহার করে নিচ্ছে তেল আবিব। এর আগে গতমাসে ইসরাইল গাজা থেকে তাদের সবচেয়ে প্রশিক্ষিত ও দুর্ধর্ষ গোলানি ব্রিগেড প্রত্যাহার করে নিতে বাধ্য হয়েছিল। ফিলিস্তিনি বার্তা সংস্থা প্যালেস্টাইন ক্রনিক দাবি করেছে, এই যুদ্ধে ইসরাইলের পরাজয়ের লক্ষণগুলো স্পষ্ট হতে শুরু করেছে। গাজায় প্রায় তিন মাস ধরে আগ্রাসন চালানোর পরও ইসরাইলের অর্জন শূন্য। ইসরাইলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। হতাহত হয়েছে বহু সেনা। ধকল সামলাতেই এ সিদ্ধান্ত ইসরাইলের। 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category