1. domhostregbd@gmail.com : admin :
  2. faruqqepress@gmail.com : znewstv :

ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তর কর্তৃক তদারকি অভিযান

  • Update Time : Friday, August 21, 2020
  • 76 Time View

জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের সার্বিক নির্দেশনা এবং জেলা প্রশাসক, মৌলভীবাজারের তত্ত্বাবধানে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, মৌলভীবাজার জেলা কার্যালয় এর সহকারী পরিচালক মো: আল-আমিন এর নেতৃত্বে শেরপুর ফাঁড়ির পুলিশ ফোর্সের সহযোগিতায় রবিবার (১৬ আগস্ট) মৌলভীবাজার সদর উপজেলার আফরোজগঞ্জ বাজার, শেরপুর, মৌলভীবাজার রোড, বালিকান্দিসহ বিভিন্ন জায়গায় নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রীর প্রতিষ্ঠান, ফার্মেসী, চামড়া সংরক্ষণের গুদাম ঘর এবং অন্যান্য দোকানে মনিটরিং ও সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।

        উক্ত তদারকি অভিযানে মূল্য তালিকা না রাখা, নোংরা পরিবেশে খাদ্য পণ্য সংরক্ষণ করা, মেয়াদ উত্তীর্ণ খাদ্য পণ্য বিক্রয় করা, মাহামান্য হাইকোর্ট কর্তৃক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, জীবানুনাশক স্প্রেসহ অনুরুপ দাহ্যজাতীয় পণ্যের মোড়কের গায়ে দৃশ্যমান স্থানে ও স্পষ্ট অক্ষরে লাল কালি দ্বারা সংযুক্ত পত্রে প্রদর্শিত লোগোসহ “সতর্কতা: দাহ্য পদার্থ, আগুন থেকে দূরে রাখুন” নির্দেশনা মুদ্রণপূর্বক বাজারজাত করার নির্দেশনা না মানাসহ বিভিন্ন অনিয়মের দায়ে আফরোজগঞ্জ বাজারে অবস্থিত এনামুল খাদ্য ভান্ডারকে ১ হাজার ৫ শত  টাকা, জয়গুরু ভেরাইটিজ ষ্টোরকে ৩ হাজার টাকা, শেরপুর বাজারে অবস্থিত সুমা ফুডকে ৪ হাজার টাকা জরিমানা আরোপ ও তা আদায় করা হয়।                                     

    আজকের অভিযানে মোট ৩ টি প্রতিষ্ঠানকে সর্বমোট ৮ হাজার ৫ শত টাকা জরিমানা ও তা আদায় করা হয়। জনস্বার্থে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর কর্তৃক প্রতিনিয়ত বাজার মনিটরিং কার্যক্রম চলমান থাকবে।  

               এছাড়াও সদর উপজেলার বালিকান্দি বাজার সংলগ্ন এলাকায় চামড়া ব্যবাসায়ী কর্তৃক সংগৃহীত  কোরবানির প্রাণীর চামড়া তদারকি করা হয়। তদারকি কালে দেখা যায় যে মৌসুমী কিছু চামড়ার ব্যবসায়ী প্রায় ১ হাজারের মত চামড়া বিক্রয় করেছেন। হাফিজ আনোয়ার মিয়ার চামড়ার গুদাম ঘর,  সোলেমান মিয়ার চামড়ার গুদাম ঘর, মো: শওকত মেম্বারে চামড়ার গুদাম ঘর, মো: আজাদ মিয়ার চামড়ার গুদাম ঘর তদারকি করতে গিয়ে দেখা যায় তাদের সহকারে আরো কিছূ ব্যবসায়ীর সংগৃহীত চামড়া  প্রায় ৯ হাজারের মত এখনও বিক্রয় হয়নি। ঢাকার আড়তদারের সাথে যোগাযোগ করার কথা উল্লেখ করে সহকারী পরিচালক  ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর তাদের সহযোগিতার জন্য তাদের পাশে আছে বলে আশ্বস্ত করেন।  সংগৃহীত চামড়াগুলো সঠিকভাবে লবণ দিয়ে সংরক্ষণের জন্য তাদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category